সংবাদ শিরোনাম :

পুলিশে চাকরি দেয়ার প্রলোভনে তরুণীকে ধর্ষণ!

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১০ জুলাই, ২০১৯
  • ৬ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক: – পুলিশে চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে চট্টগ্রামে এক কনস্টেবলের স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় জড়িত দুজনকে গ্রেপ্তার এবং ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূকে (২২) উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মো. মহব্বত আলী (২৮) ও শাহাদাত হোসেন রাজু (৩১)। তারা সম্প্রতি সাসপেন্ড হওয়া ট্রাফিক পুলিশের সদস্য (টিএসআই) কাসেমের ক্যাশিয়ার হিসেবে কাজ করতো।

ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সদীপ দাশ জানান, চাকরি দেয়ার কথা বলে রাঙ্গামাটি থেকে মেয়েটিকে চট্টগ্রাম নিয়ে আসে একটি চক্র। তাকে একটি বাসায় আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়।

ডবলমুরিং থানার এসআই অর্ণব বড়ুয়া জানান, স্বামী-স্ত্রীর বিরোধের সুযোগ নিয়ে আসামি শাহাদাত হোসেন রাজু তরুণীটিকে পুলিশের চাকরিসহ বিভিন্ন লোভনীয় প্রস্তাব দিয়ে তার কাছে নিয়ে যায় এবং কিছুদিন আগে নগরীর আগ্রাবাদ চৌমুহনীস্থ হক টাওয়ারে (আবাসিক হোটেল) নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে শাহাদাত তার বন্ধু মো. মহব্বত আলীর কাছে ওই তরুণীকে রেখে আসে।

মহব্বত আলী তাকে স্ত্রী পরিচয় দিয়ে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় বাসা খুঁজতে থাকেন।

সোমবার ঈদগাঁ ঝর্ণা পাড়া এলাকায় বাসা খুঁজতে গিয়ে এলাকার নারীদের ওই তরুণী তার কাহিনী বলে দেয়। পরে পুলিশ খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে ও মো. মহব্বত আলীকে গ্রেপ্তার করে।

মহব্বতের স্বীকারোক্তিতে কৌশলে তাকে দিয়ে ফোন করিয়ে রাতে নগরীর ডবলমুরিং থানার চারিয়া পাড়া এলাকা থেকে রাজুকে গ্রেপ্তার করা হয়। সূত্র:- বিডি জার্নাল

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..