যানজট নেই ঢাকা-সিলেট ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১১ আগস্ট, ২০১৯

ঈদের ছুটিতে ঘরমুখো মানুষের যাতায়াতকে কেন্দ্র করে প্রতিবছর ঈদের আগের ও পরের দু’দিন ব্যাপক ঢাকা-সিলেট ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজট ভোগালেও এবার দেখা যাচ্ছে ভিন্ন চিত্র। তেমন কোনো যানজট না থাকায় স্বস্তিতে বাড়ি যেতে পারছেন এই দুই মহাসড়কের যাত্রীরা। গতকাল শনিবার দু’টি সড়কেরই যানজটপ্রবণ নারায়ণগঞ্জ অংশ ঘুরে দেখা যায়, যানবাহন স্বাভাবিকভাবে চলাচল করছে। সড়কে রয়েছে ট্রাফিক বিভাগের টিমও। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নতুন দ্বিতীয় কাঁচপুর সেতু, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভুলতা ফ্লাইওভার, ঢাকা চট্টগ্রাম-মহাসড়কের মেঘনা সেতু ও ফোর লেন চালু থাকায় যানজট একেবারেই নেই বললেই চলে। এ পথে ঘরমুখো মানুষ এবার স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন। ঢাকা থেকে চট্টগ্রামগামী শ্যামলী পরিবহনের যাত্রী কবির বলেন, এবার কোনো যানজটই পেলাম না। সকালে ৯টায় বাসে উঠেছি, এখন পর্যন্ত তেমন কোনো যানজট নেই। তবে মেঘনা টোল প্লাজায় টোলের কাজে একটু থামতে হলো। আরও কয়েকটি পরিবহনের যাত্রী এবং চালক ও হেলপারদের সঙ্গে কথা বলেও স্বস্তির বিষয়টি বোঝা যায়। নারায়ণগঞ্জ ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক (প্রশাসন) মোল্লা তাসলিম হোসেন বলেন, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের যে যানজটটি এখানে ছিল, সেটি এখন একেবারেই নেই। ভুলতা ফ্লাইওভারটি খুলে দেওয়ায় আমাদের জন্য উপকার হয়েছে, পাশাপাশি ঘরমুখো মানুষের স্বস্তি এসেছে। এই ফ্লাইওভারটির আর মাত্র ৫ শতাংশ কাজ বাকি, ঈদের পর ফ্লাইওভারটি বন্ধ রেখে ওইটুকু কাজ সম্পন্ন করা হবে। তিনি জানান, রোজার ঈদের আগে দ্বিতীয় কাঁচপুর ও মেঘনা সেতুতে যান চলাচল শুরু হওয়ার পর থেকেই ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজট কমে আসে। এবার নতুন ফ্লাইওভারটি চালু হওয়ায় (সাময়িকভাবে সাত দিনের জন্য) ঢাকা-সিলেট মহাসড়কেও যানজট নেই।
সাভার-আশুলিয়ার মহাসড়কও যানজটহীন: ঈদের আগে চির পরিচিত যানজটের উল্টো চিত্র বিরাজ করছে সাভার ও আশুলিয়া সব মহাসড়কে। নেই গাড়ির দীর্ঘ সারি। রাজধানী থেকে বেরিয়ে স্বাভাবিক গতিতে স্বস্তিতেই এই এলাকা অতিক্রম করছেন যাত্রীরা। গতকাল শনিবার সরেজমিনে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে সড়কে শৃঙ্খলা বজায় রাখতে বিপুল সংখ্যক পুলিশ দায়িত্ব পালন করছেন। ব্যস্ততম ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে গাড়ির কিছুটা চাপ থাকলেও যানজট নেই। যানবাহন নির্বিঘেœ আমিন বাজার থেকে নবীনগর থেকে হয়ে মানিকগঞ্জ পর্যন্ত চলছে। এছাড়া নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কেও কোনো যানজট দেখা যায়নি। আর বাইপাইল-আবদুল্লাহপুর সড়কে বাইপাইল পয়েন্ট ছাড়া জটলা দেখা যায়নি কোনো স্থানে। সিগন্যাল ছাড়া থেমে থাকতে হচ্ছে না কোনো গাড়িকে। ঢাকা জেলা ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক আবুল হোসেন জানান, সড়কে যানজটের অন্যতম কারণ হচ্ছে বিশৃঙ্খলা। এবারে যাতে বিশৃঙ্খলা না থাকে এজন্য আগে থেকেই আমরা মাঠে নেমেছি। আশা করি ঈদ পর্যন্ত এই চিত্র অব্যাহত থাকবে।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..