সংবাদ শিরোনাম :
পঞ্চগড়ে সবুজ আন্দোলনের উদ্যোগে জলবায়ু সমস্যা ও উত্তরণের উপায় শীর্ষক সভা ও বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি রায়পুরায় আন্ত:গ্রাম ফুটবল টুর্নামেন্ট দ্বিতীয় দিনের খেলা অনুষ্ঠিত আল্লামা অলিপুরীর উপস্থিতিতে রাবেতাতুল ওয়ায়েজীনের বিশেষ বৈঠক বেনাপোল কাস্টম হাউসের ভল্ট ভেঙ্গে ১৯ কেজি স্বর্ণ চুরি মনোহরদীতে মাদক বিরোধী গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে হাজারো মানুষের ঢল আবারো বাড়ল পেঁয়াজের দাম রেল সংশ্লিষ্টদের সতর্ক হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী প্রায় ৮ ঘণ্টা পর ঢাকা-চট্টগ্রাম রেল চলাচল শুরু মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ আবু তাহের ভূইঁয়ার ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ কসবার ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৫, তদন্ত কমিটি

ঘূর্ণিঝড়ে উত্তাল সাগর, চট্টগ্রাম বন্দরে ৬ নম্বর সতর্কসংকেত জারি

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৮ নভেম্বর, ২০১৯
প্রতিকী ছবি

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’-এর প্রভাবে চট্টগ্রাম বন্দরে ৬ নম্বর সতর্কসংকেত জারি করা হয়েছে। এদিকে মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরে ৭ নম্বর সতর্কসংকেত জারি করা হয়েছে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় আবহাওয়া অধিদফতর এ সতর্কতা জারি করেছে। এর আগে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরসমূহকে ৪ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছিল।

আবহাওয়া অধিদফতর সূত্র বলছে, ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ ক্রমেই শক্তি সঞ্চার করে ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। শুরুর দিকে ঘূর্ণিঝড়ের বাতাসের গতি ছিল ঘণ্টায় ৮০-৯০ কিলোমিটার। শুক্রবার দুপুর থেকে এটির শক্তি ক্রমেই বাড়তে থাকে। ‘বুলবুল’ ইতিমধ্যে দ্বিতীয় ক্যাটাগরির ঘূর্ণিঝড়ে উন্নীত হয়েছে। এটি এখন আঘাত হানলে ১৩০ কিলোমিটার বেগে বাতাস বইবে। যে বাতাসে ঘরবাড়ি উড়িয়ে নিয়ে যেতে পারে।

তবে রোববার ফের শক্তি কমে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের (ভেরি সিভিয়ার সাইক্লোনিক স্টর্ম) রূপ পেতে পারে বুলবুল। তারপর ধীরে ধীরে আরও শক্তি হারিয়ে ১১ নভেম্বর ফের ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..