মিয়ানমারের সঙ্গে সম্পর্ক স্থগিত করার ঘোষণা নিউজিল্যান্ডের

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে সামরিক শাসন জারির পর মিয়ানমারের সঙ্গে সম্পর্ক স্থগিত করার ঘোষণা দিয়েছে নিউজিল্যান্ড। সেই সঙ্গে মিয়ানমারের ঊর্ধ্বতন সেনা কর্মকর্তাদের নিউজিল্যান্ড সফরেও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানা যায়, নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন মঙ্গলবার এ ঘোষণা দেন। মিয়ানমারের সামরিক সরকার সুবিধা পেতে পারে, এমন কোনো সহায়তা কর্মসূচিও সেখানে বাস্তবায়ন করবে না নিউজিল্যান্ড।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মিয়ানমারের সামরিক শাসনের বিপক্ষে আমাদের অবস্থান। এব্যাপারে আমরা কঠোর বার্তা দিতে চাই। আমরা বলতে চাই, এখানে, নিউজিল্যান্ডে বসে যা যা করা সম্ভব, তার সবই আমরা করব। উচ্চ পর্যায়ের সব আলোচনা আমরা স্থগিত করব। এমন কোনো সাহায্য আমরা মিয়ানমারে দেব না, যেটা সামরিক সরকারকে সুবিধা দেবে।’

২০১৮ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত মিয়ানমারকে চার কোটি ২০ লাখ ডলারের সহায়তা দিয়েছে নিউজিল্যান্ড।

গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারে অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে সামরিক বাহিনীর ক্ষমতা দখল ও নির্বাচিত সরকারের নেত্রী অং সান সু চিসহ জ্যেষ্ঠ নেতাদের আটক করার প্রতিক্রিয়ায় দেশটিতে প্রতিবাদ চলছে।

নিউজিল্যান্ড মিয়ানমারের ওই সেনা সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি। সেই সঙ্গে সু’চিসহ আটকদের সবাইকে মুক্তি দিয়ে বেসামরিক সরকারের হাতে ক্ষমতা ফিরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..