1. mostafa0192@gmail.com : admin :
এরশাদ ছিলেন উন্নয়নের প্রতীক -এড. শাহিদা রহমান রিংকু - আলোকিত খবর
  • E-paper
  • English Version
  • সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
রায়পুরায় পুবেরচর শ্রী শ্রী গীতা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পুরস্কার বিতরণ শিক্ষার্থীদের জন্য ল্যাংগুয়েজ ক্লাব গঠনের উদ্যোগে প্রশংসায় ভাসছেন পলাশের ইউএনও রবিউল আলম নরসিংদীতে বিএনপির আহবায়ক খায়রুল কবীর খোকনের বাসভবনে অগ্নিসংযোগ সার্ক জার্নালিস্ট ফোরাম “বাংলাদেশ চ্যাপ্টার”র সভা অনুষ্ঠিত ভৈরবে বাঁশগাড়ি মসজিদুল আকসা জামে মসজিদ উন্নয়নে আলোচনা সভা পথফুল ফাউন্ডেশনের ৫ম বর্ষপূর্তি উৎযাপন নরসিংদীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে বদলে যাচ্ছে আশ্রয়হীনদের জীবন রায়পুরায় ট্রেনে ধাক্কায় শ্রবণ প্রতিবন্ধীসহ দুই বৃদ্ধের মৃত্যু কুলিয়ারচরে ৮মামলার আসামী আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য রতন ডাকাত গ্রেফতার রায়পুরা উপজেলা ও ইউপি উপনির্বাচনের ভোট গ্রহন ১৩ ও ১৬ মার্চ

এরশাদ ছিলেন উন্নয়নের প্রতীক -এড. শাহিদা রহমান রিংকু

  • প্রকাশকাল : বৃহস্পতিবার, ৯ জুন, ২০২২
  • ৪২ সময়

স্টাফ রিপোর্টার:

সাবেক রাষ্ট্রপতি আলহাজ্ব হোসেইন মোহাম্মদ এরশাদ ছিলেন উন্নয়নের প্রতীক। তার সরকারের সময় এইদেশে উন্নয়নের যে ধারাবাহিকতা শুরু হয়েছিল তার বিএনপি সরকার ধংস করতে চাইলেও পারেনি। কালের পরিক্রমায় আজ সেই উন্নয়ন অব্যহত রয়েছে এমনটাই তার বক্তব্যে বলছিলেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট শাহিদা রহমান রিংকু।

কর্মী সমাবেশে মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণায়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী, জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান, জাতীয় মহিলা পার্টির আহ্বায়ক ও যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি বলেছেন, শান্তি ও সমৃদ্ধির প্রতীক লাঙ্গল। জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সাবেক প্রেসিডেন্ট মরহুম হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ উন্নয়নের প্রতীক। তার রেখে যাওয়া আদর্শ বাস্তবায়নে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট এরশাদ দেশের মানুষকে ভালোবাসতেন এবং মহিলাদের উন্নয়নে কাজ করে গেছেন। তিনি নির্যাতিত মহিলাদের পাশে সবসময় দাঁড়াতেন। তিনি অ্যাসিড ও যৌতুকের বিরুদ্ধে আইন করে গেছেন।
মঙ্গলবার বিকালে ময়মনসিংহ নগরীর ইতিকথা কমিউনিটি সেন্টারে জেলা ও মহানগর জাতীয় মহিলা পার্টির বিশাল কর্মী সমাবেশে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, এরশাদ ছিলেন উন্নয়নের প্রতীক। তিনি দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে সারা দেশের রাস্তঘাট নির্মাণ করেছেন। এক সময় ঢাকাবাসী বর্ষাকালে জলাবদ্ধতায় দুর্ভোগ পোহাতেন। তিনি ঢাকার চারিদিকে বেড়িবাঁধ নির্মাণ করে জনগণের কষ্ট লাঘব করেছেন। আমাদের প্রিয় বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম রওশন এরশাদ জাতীয় পার্টিকে সংগঠিত করে অনেকদূর এগিয়ে নিয়েছেন। বেগম রওশন এরশাদ ও বর্তমান জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টিকে আরও সুসংগঠিত করতে জাতীয় মহিলা পার্টির নেতাকর্মীদের আহবান জানান তিনি।

জেলা মহিলা পার্টির সভাপতি সাদিয়া ইসলামের সভাপতিত্বে কর্মী সমাবেশের উদ্বোধন করেন জাতীয় পাটির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ও মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি জাহাঙ্গীর আহমেদ।

প্রধান বক্তা ছিলেন চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ও জাতীয় মহিলা পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক হেনা খান পন্নী।

সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন- জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট শাহিদা রহমান রিংকু, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক তিতাস মোস্তফা, কেন্দ্রীয় মহিলা পার্টির সদস্য শান্তা ইসলাম, সামছুন্নাহার স্বপ্না খান, বাড্ডা শাখার সভাপতি আছমা আক্তার রুমী, নাজমা আক্তার কলি, জাতীয় পার্টি জেলা কমিটির সদস্য সচিব ইশরাত শারমীন, যুগ্ম আহবায়ক রেখা রানী সাহা প্রমুখ।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আউয়াল সেলিম ও জাতীয় পার্টির নেতা ইদ্রিছ আলী।

Please Share This Post in Your Social Media

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...