1. mostafa0192@gmail.com : admin :
দৌলতপুরে বঙ্গবন্ধুর ৪৭তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও শোক দিবস পালন - আলোকিত খবর
  • E-paper
  • English Version
  • সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৯:৫২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
রায়পুরায় পুবেরচর শ্রী শ্রী গীতা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পুরস্কার বিতরণ শিক্ষার্থীদের জন্য ল্যাংগুয়েজ ক্লাব গঠনের উদ্যোগে প্রশংসায় ভাসছেন পলাশের ইউএনও রবিউল আলম নরসিংদীতে বিএনপির আহবায়ক খায়রুল কবীর খোকনের বাসভবনে অগ্নিসংযোগ সার্ক জার্নালিস্ট ফোরাম “বাংলাদেশ চ্যাপ্টার”র সভা অনুষ্ঠিত ভৈরবে বাঁশগাড়ি মসজিদুল আকসা জামে মসজিদ উন্নয়নে আলোচনা সভা পথফুল ফাউন্ডেশনের ৫ম বর্ষপূর্তি উৎযাপন নরসিংদীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে বদলে যাচ্ছে আশ্রয়হীনদের জীবন রায়পুরায় ট্রেনে ধাক্কায় শ্রবণ প্রতিবন্ধীসহ দুই বৃদ্ধের মৃত্যু কুলিয়ারচরে ৮মামলার আসামী আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য রতন ডাকাত গ্রেফতার রায়পুরা উপজেলা ও ইউপি উপনির্বাচনের ভোট গ্রহন ১৩ ও ১৬ মার্চ

দৌলতপুরে বঙ্গবন্ধুর ৪৭তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও শোক দিবস পালন

  • প্রকাশকাল : সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২
  • ৩৭ সময়

মোঃ সম্রাট আলী, দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি:

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৭ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে।

সোমবার (১৫ আগস্ট) উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে দিবসটির শুরুতে সকাল ৮টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে স্থাপিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে জাতির পিতা ও বঙ্গমাতাসহ পরিবারের শহীদ সদস্যদের স্মরণে স্মৃতিচারণমূলক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

প্রথমে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এর পক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এরপর পর্যায়ক্রমে উপজেলা প্রশাসন, দৌলতপুর থানা প্রশাসন, সংসদ সদস্য আ কা ম সরওয়ার জাহান বাদশাহ’র পক্ষে, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ, দৌলতপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি, উপজেলা স্কাউটস, উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, দৌলতপুর রিপোর্টার্স ক্লাব, দৌলতপুর প্রেস ক্লাব, দৌলতপুর প্রেস ক্লাব (ডিপিসি) পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল জব্বারের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা হায়দার আলী,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাক্কির আহমেদ, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সোনালী খাতুন। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা কৃষি অফিসার, উপজেলা মৎস্য অফিসার, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, উপজেলা প্রকৌশলী, উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার, দৌলতপুর থানা অফিসার ইনচার্জ, এছাড়াও বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষক শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল জব্বার বক্তব্যে বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ভোররাতে সেনাবাহিনীর কয়েকজন বিপথগামী সদস্য ধানমন্ডির বাসভবনে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে। ঘাতকরা শুধু বঙ্গবন্ধুকেই হত্যা করেনি, তাদের হাতে একে একে প্রাণ হারিয়েছেন বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা, বঙ্গবন্ধুর সন্তান শেখ কামাল, শেখ জামাল ও শিশু শেখ রাসেলসহ পুত্রবধূ সুলতানা কামাল ও রোজি জামাল।

তিনি আরও বলেন পৃথিবীর এই জঘন্যতম হত্যাকাণ্ড থেকে বাঁচতে পারেননি বঙ্গবন্ধুর অনুজ শেখ নাসের, ভগ্নীপতি আবদুর রব সেরনিয়াবাত, তার ছেলে আরিফ, মেয়ে বেবি ও সুকান্তবাবু, বঙ্গবন্ধুর ভাগ্নে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক শেখ ফজলুল হক মনি, তার অন্তসত্বা স্ত্রী আরজু মনি এবং আবদুল নাঈম খান রিন্টু ও কর্নেল জামিলসহ পরিবারের ১৬ জন সদস্য ও ঘনিষ্ঠজন। সেসময় বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বিদেশে থাকায় প্রাণে রক্ষা পান।

Please Share This Post in Your Social Media

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...