1. mostafa0192@gmail.com : admin :
নরসিংদীতে অগ্রণী ব্যাংকের ভিতর মিললো ২জন আনসার সদস্যের মরদেহ - আলোকিত খবর
  • E-paper
  • English Version
  • বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৯:৪২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ভেড়ামারা সরকারি কলেজে চুরি আমি চাঁদাবাজ নই, আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে : যুবলীগ নেতা আতিক নরসিংদীতে মেঘনার পাড়ে বাউল সাধকদের পদচারণায় মুখোর ঐতিহ্যবাহী বাউল মেলা রায়পুরায় বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা রায়পুরায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিনের অর্থায়নে শীত বস্ত্র বিতরণ রায়পুরা উপজেলা মডেল কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের ৬ষ্ট বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে স্মার্টশিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রয়োজন : আনোয়ারুল আশরাফ খান রায়পুরায় মাদ্রাসার এতিম শিক্ষার্থীদের মাঝে উপজেলা চেয়ারম্যানের কম্বল বিতরণ লায়ন মুজিব-মুনা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শনে নেপালের রাষ্ট্রদূত ভৈরবে ১শকেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্য্যব-১৪

নরসিংদীতে অগ্রণী ব্যাংকের ভিতর মিললো ২জন আনসার সদস্যের মরদেহ

  • প্রকাশকাল : বুধবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৯ সময়

স্টাফ রিপোর্টার: নরসিংদী:

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার অগ্রণী ব্যাংক রাধাগঞ্জ শাখায় নিরাপত্তার দায়িত্বরত ২জন আনসার সদস্যের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১৮ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার আদিয়াবাদ ইউনিয়নে অবস্থিত অগ্রণী ব্যাংক রাধাগঞ্জ বাজার শাখায় ঘটনাটি ঘটে।
পরে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

মৃতরা হলেন, অগ্রণী ব্যাংক রাধাগঞ্জ শাখায় কর্মরত আনসার সদস্য রঞ্জু মিয়া ওরফে রঞ্জন (৩৫) এবং তৌহিদুল আলম (২৪)। রঞ্জু’র গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইলে এবং তৌহিদুল এর গ্রামের বাড়ি ফরিদপুরের ভাঙা উপজেলায়।
ঘটনাটি নিশ্চিত করেছে, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রায়পুরা সার্কেল সত্যজিৎ কুমার ঘোষ।

অগ্রণী ব্যাংক নরসিংদী আঞ্চলিক শাখার জিএম হাসিবুল হোসেন শান্ত সাংবাদিকদের জানান, ব্যাংকের সবকিছু ঠিকঠাক রয়েছে। ব্যাংকে কোন ধরনের ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি। রঞ্জু এক বছরের অধিক সময় ধরে ব্যাংকটিতে কর্মরত ছিলো এবং তৌহিদ প্রায় ৬মাস ধরে ব্যাংকটিতে কর্মরত ছিলো বলে জানান এ কর্মকর্তা। তিনি আরো জানান, বিষয়টি নিয়ে জেলার পুলিশ, ডিবি, সিআইডি সহ গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা কাজ করছে খুব দ্রæত সঠিক ঘটনাটি বেরিয়ে আসবে।

আদিয়াবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মো. সেলিম মিয়া জানান, ব্যাংকটিতে আনসার সদস্য ২জন একসাথেই ব্যাংকের গোডাউনের থাকতো। ধারনা করা হচ্ছে তাদের খাবারে কোন সমস্যা ছিলো। বৈদ্যুতিক শক, ডেট ওভার কিংবা খাবারে কোন বিষক্রিয়ার ফলে ঘটনা ঘটতে পারে। প্রশাসনের লোকজন এসেছেন তদন্তের পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

নরসিংদী পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম বলেন, এই মুহুর্তে আপনাদেরকে বলার মতো কিছু নেই। তদন্ত চলমান রয়েছে। আমরা সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়না তদন্তে জন্য মরদেহ নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করবো।

Please Share This Post in Your Social Media

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...