1. mostafa0192@gmail.com : admin :
না ফেরার দেশে চলে গেলেন রায়পুরা উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুস সাদেক - আলোকিত খবর
  • E-paper
  • English Version
  • বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ভেড়ামারা সরকারি কলেজে চুরি আমি চাঁদাবাজ নই, আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে : যুবলীগ নেতা আতিক নরসিংদীতে মেঘনার পাড়ে বাউল সাধকদের পদচারণায় মুখোর ঐতিহ্যবাহী বাউল মেলা রায়পুরায় বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা রায়পুরায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিনের অর্থায়নে শীত বস্ত্র বিতরণ রায়পুরা উপজেলা মডেল কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়নের ৬ষ্ট বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে স্মার্টশিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রয়োজন : আনোয়ারুল আশরাফ খান রায়পুরায় মাদ্রাসার এতিম শিক্ষার্থীদের মাঝে উপজেলা চেয়ারম্যানের কম্বল বিতরণ লায়ন মুজিব-মুনা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শনে নেপালের রাষ্ট্রদূত ভৈরবে ১শকেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্য্যব-১৪

না ফেরার দেশে চলে গেলেন রায়পুরা উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুস সাদেক

  • প্রকাশকাল : মঙ্গলবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৭ সময়

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নরসিংদী রায়পুরা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাদেক আর নেই।

মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন । (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়েসহ অনেক গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রায়পুরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আজগর হোসেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাদেক গত তিন মাস আগে অসুস্থ হয়ে পড়েন। মাস দুয়েক মাস আগে তাকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্তসহ রায়পুরা উপজেলার রাধানগর ইউনিয়ন পরিষদের টানা ৪ বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন। পরে তিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রাথী বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন এবং জয়ী হন। ওই নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় তাকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে অব্যাহতি দেয় দলটি। তিনি ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে দেশমাতৃকার টানে সক্রিয়ভাবে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে ছিলেন। রায়পুরা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুস সাদেক নিজ গ্রামে গকুলনগর আবেদা ফজলু স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা এবং বেলাব উপজেলার নারায়ণপুর সরাফত উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালনসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...