Headline :
নরসিংদীর রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে পিটিয়ে হত্যা শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন বোচাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন কুলিয়ারচরে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আবুল হোসেন লিটন চেয়ারম্যান নির্বাচিত ময়মনসিংহে প্রতিবেশীর সাথে সংঘর্ষের জেরে কৃষকের মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেফতার ৩ সাংবাদিক এস,এম ইসাহক আলী রাজুর জন্মদিন আজ ভেড়ামারায় উপজেলার চেয়ারম্যান হলেন মুকুল এবার ঈদে রিলিজ হচ্ছে পারভীন লিসার “তুমি আমার মনের ভেতর” রায়পুরায় পূজা উদযাপন পরিষদ মির্জাপুর ইউনিয়ন শাখার দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অন্তর্জালে মুক্তি পেলো তরুণ সংগীত শিল্পী রনির গান “দিলে মারে ঝটকা” শীঘ্রই আসছে পলাশ-মিতু’র বিয়াই বিয়াইন
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন

ময়মনসিংহে (মমেক) হাসপাতালে পুলিশ ও ইন্টার্ন চিকিৎসকদের সংঘর্ষের ঘটনায় ৩ দিনের কর্মবিরতি ঘোষণা

Reporter Name / ৪৬ Time View
Update : শুক্রবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ(মমেক) হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসক এবং পুলিশের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় ২ পুলিশ সদস্য ও ৮ জন ইন্টার্ন চিকিৎসক আহত হয়েছেন।

৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ইং তারিখ বুধবার রাত প্রায় সাড়ে ১০টার দিকে হাসপাতালের পুরাতন ভবনের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। এই ঘটনার জেরে ৩ দিনের কর্মবিরতি ঘোষণা করেছেন হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসকরা।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ(মমেক) হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডাঃ জাকিউল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
তিনি জানান, বুধবার রাত প্রায় ১০ টার দিকে কক্সবাজার পুলিশ লাইনে কর্মরত এএসআই মাহমুদুল হাসান তার স্ত্রী নিলুফার ইয়াসমিনকে হাসপাতালের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করেন। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর মাহমুদুল হাসান কর্তব্যরত চিকিৎসককে ডাকেন। তখন ওই চিকিৎসক অন্য রোগী দেখছিলেন, একটু পরে আসবেন বলে জানান কিন্তু এতে এএসআই মাহমুদুল হাসান ক্ষিপ্ত হয়ে চিকিৎসকের সঙ্গে বাজে আচরণ করেন। এসময় দুইপক্ষের মাঝে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। খবর পেয়ে হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে আসেন। সেখানে অবস্থার অবনতি দেখে তিনি এএসআই মাহমুদুলকে পুলিশ ক্যাম্পে নিয়ে যান। পরে কয়েকজন ইন্টার্ন চিকিৎসক পুলিশ ক্যাম্পে যান। পুলিশ ক্যাম্পে দুই পক্ষের কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে সংঘর্ষের রূপ ধারণ করে। পরে সংঘর্ষে ৮ জন ইন্টার্ন চিকিৎসক আহত হন। তাদের মাঝে ডাঃ শামীম রেজা ও ডাঃ সাদিক গুরুতর আহত হন। তাদের আইসিইউতে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শাহ্ কামাল আকন্দ বলেন, দুই পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনার পর রাতেই জেলা পুলিশ সুপার মাসুম আহমেদ ভুঁঞা ও ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন (মসিক)মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এসময় পুলিশ সুপার ঘটনার সঙ্গে জড়িত হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম ও পুলিশ সদস্য আরিফকে সাময়িক বরখাস্ত করেন।

ওসি আরও বলেন, ঘটনা তদন্তে ৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছেন পুলিশ সুপার। কমিটিকে আগামী ৩ দিনের মাঝে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। তদন্তের পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ঘটনার পর দিন ৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ(মমেক) হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ৩ দিনের কর্মবিরতি ঘোষণা করেন।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বুধবার রাত ১০ টায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত ইন্টার্ন চিকিৎসকের ওপর রোগীর স্বজন এবং পুলিশ ক্যাম্পের সদস্যরা হামলা করেন। এর প্রতিবাদে আগামী ৩ কার্যদিবস কর্মবিরতি পালন করার ঘোষণা দেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। সেই সঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওই ঘটনার সুষ্ঠু সমাধান দিতে ব্যর্থ হলে পরবর্তীতে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানান তারা।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ গোলাম ফেরদৌস বলেন, হাসপাতালে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে।এতে হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসকরা কর্মবিরতি ঘোষণা করেছেন। এতে সাময়িক সমস্যা হলেও হাসপাতালের পোস্টেড চিকিৎসক দিয়ে তা কাটিয়ে তোলার চেষ্টা করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল