Headline :
নরসিংদীর রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে পিটিয়ে হত্যা শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন বোচাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন কুলিয়ারচরে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আবুল হোসেন লিটন চেয়ারম্যান নির্বাচিত ময়মনসিংহে প্রতিবেশীর সাথে সংঘর্ষের জেরে কৃষকের মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেফতার ৩ সাংবাদিক এস,এম ইসাহক আলী রাজুর জন্মদিন আজ ভেড়ামারায় উপজেলার চেয়ারম্যান হলেন মুকুল এবার ঈদে রিলিজ হচ্ছে পারভীন লিসার “তুমি আমার মনের ভেতর” রায়পুরায় পূজা উদযাপন পরিষদ মির্জাপুর ইউনিয়ন শাখার দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অন্তর্জালে মুক্তি পেলো তরুণ সংগীত শিল্পী রনির গান “দিলে মারে ঝটকা” শীঘ্রই আসছে পলাশ-মিতু’র বিয়াই বিয়াইন
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১২:৩০ পূর্বাহ্ন

রায়পুরায় সালিশী দরবারে ইউপি সদস্যকে মারধরের অভিযোগ

Reporter Name / ১২০ Time View
Update : শুক্রবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২৩

রায়পুরা (নরসিংদী) প্রতিনিধি:

নরসিংদীর রায়পুরায় দু’পক্ষের বিবদমান দ্বন্ধ নিরসনে সালিশী দরবারের মাঝে ‍দুইবারের নির্বাচিত এক ইউপি সদস্যকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আহত ইউপি সদস্য তাজুল ইসলাম নিজে বাদী হয়ে রায়পুরা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

রায়পুরা উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের গকুলনগর এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

অভিযোগের বিবরণে জানা যায়, গত ২৩ অক্টোবর সকাল আনুমানিক ১১টায় উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের গকুলনগর বাতেন মিয়ার বাড়ীতে দুই পক্ষের বিবাদের বিষয় নিয়ে আপোষ মীমাংসার জন্য ইউপি চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম তপনের নেতৃত্বে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে এক শালীস দরবার বসে এবং ইউপি সদস্য তাজুল ইসলাম উক্ত শালীস দরবারে উপস্থিত ছিলেন। কাশেম ও বাছেদ গংদের বিবাদমান পক্ষের দরবারে জবানবন্দি গ্রহন কালে কাশেমের পক্ষ উচ্চ স্বরে উচ্চ বাক্যে কথাবার্তা বলতে থাকলে তাজুল ইসলাম মেম্বার তাদেরকে শালীনতার মধ্য আস্তে-আস্তে কথা বলার অনুরোধ করলে ঐ পক্ষের লোকজন ক্ষিপ্ত হয় এবং তর্ক বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে এক পক্ষের আরিফুল ইসলাম রিপন (২৮), রাসেদ মিয়া (৩৫), উসমান মিয়া (৩২), সজীব (৩৪), সাদ্দাম হোসেন (২৫), আরোও অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জন এক যোগে ইউপি সদস্য তাজুল ইসলামের উপর হামলা চালায় এবং মারধর করে। এসময় ইউপি সদস্য গুরুতর আহত হয়।  পরে তাকে স্থানীয় রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়।

এ বিষয়ে কথা হয় অভিযুক্ত আরিফুল ইসলাম রিপনের সাথে। তিনি বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পুন্ন মিথ্যা। আমি দরবারে কোন কথা বলিনি। বরং হঠাৎ উত্তেজিত লোকজনকে থামানোর চেষ্ঠা করেছি এবং ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যকে ঘটনাস্থল থেকে নিরাপদে অন্যত্র নিয়ে আসি।

ইউপি চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম তপন বলেন, দুপক্ষের একটি সমস্যা ছিল। সমস্যা সমাধানের লক্ষে সালিশী দরবারে সকলের সামনে একজন জনপ্রতিনিধির উপর হামলা ও তাকে মারধরের বিষয়টি মেনে নেওয়া যায় না। এমনটা আমরা কখনোই আশা করি না। এটার একটি বিচার হওয়া দরকার।

এ ব্যাপারে অত্র ইউনিয়নের বিট পুলিশের দায়িত্বে থাকা এস আই বিল্লাল বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল