সংবাদ শিরোনাম :
বাইকের হর্ন বাজা” বাবা দিবসে ছোট ছেলের অনুভব লাকসামে প্রধানমন্ত্রীর ঘর উপহার পেলেন ৪৯ গৃহহীন পরিবার নওগাঁয় আরও ৫০২ গৃহহীন পরিবার পেল মাথা গোঁজার ঠাঁই শেরপুরে বৃক্ষরোপণ ও ছাত্রীদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ ঝিনাইগাতীতে গারো পাহাড়ের পাদদেশে প্রধানমন্ত্রীর ঘর বিতরণ নরসিংদীর পলাশে দুই ইউপি নির্বাচনে ভোট আগামীকাল, কেন্দ্রে যাচ্ছে সরঞ্জাম দৌলতপুরে জমি ও বাড়ি পেলেন ৮৮ গৃহহীন পরিবার রায়পুরায় দ্বিতীয় পর্যায়ে মাথা গুজার ঠাই পেল ১০ ভূমিহীন পরিবার কাল ২০৪ ইউপি ও লক্ষ্মীপুর-২ সংসদীয় আসনের ভোট রায়পুরার চরাঞ্চলের টেঁটাযুদ্ধের সর্দার ও হত্যা মামলার আসামী সুমেদ আলী গ্রেফতার

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে আসছে সর্বাধুনিক বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স-৮

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯

শীঘ্রই বাংলাদেশে আসছে বিশ্বের সর্বাধুনিক এয়ারক্রাফট বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স-৮। বাংলাদেশের বেসরকারী এয়ারলাইন্স ইউএস বাংলা, আন্তর্জাতিক এয়ারক্রাফট লিজিং কোম্পানী এয়ারক্যাপ ও দি বোয়িং কোম্পানী এর যৌথ ঘোষণা অনুযায়ী খুব শীঘ্রই ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স এর বিমান বহরে যুক্ত হচ্ছে এই বিমান। বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো সর্বাধুনিক এই বিমানটি পরিচালনা করতে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ বিমানটিতে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সরবরাহ করেছে বোয়িং ৭৩৭। এতে সংযুক্ত অত্যাধুনিক কেবিন ডিজাইন ও ইন-ফ্লাইট এন্টারটেননমেন্ট সিস্টেম বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। তুলনামূলক কম খরচ, পরিবেশবান্ধব ও সময়ের কারনে বিশ্বব্যাপী এয়ারালাইন্স কোম্পানীর কাছে গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠছে। বিশ্বের অনেক নামকরা এয়ারলাইন্স ইতিমধ্যে বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স বিমানটি ব্যবহার করা শুরু করেছে। এর মধ্যে রয়েছে মালয়শিয়া এয়ারলাইন্স, টার্কিশ এয়ারলাইন্স, ওমান এয়ার, কাতার এয়ারওয়েজ, ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স, আমেরিকান এয়ারলাইন্স, চায়না ইস্টার্ণ, চায়না সাউদার্ণ, জেট এয়ারওয়েজ, স্পাইস জেট, ফ্লাই দুবাইসহ আরও বেশ কয়েকটি এয়ারলাইন্স।

এছাড়াও খুব শীঘ্রই দুইটি নতুন এটিআর ৭২-৬০০ মডেলের বিমান যুক্ত হতে যাচ্ছে ইউএস বাংলার বিমান বহরে। যাত্রী সাধারণের চাহিদা অনুযায়ী ইউএস বাংলাই প্রথম কোনো বেসরকারী এয়ারলাইন্স, যা ফ্যাক্টরী থেকে সরাসরি এয়ারক্রাফট সংগ্রহ করতে যাচ্ছে।

বোয়িংয়ের এই সর্বাধুনিক বিমান নিজেদের বহরে সংযুক্তির বিষয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ‘ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স’ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব ইমরান আসিফ, এয়ারক্যাপ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও চীফ কর্মার্শিয়াল অফিসার মি. ফিলিপ স্ক্রাগস, লিজিং কোম্পানীর মি. সুতেশ সেলভারাতনাম, দি বোয়িং কোম্পানীর ডাইরেক্টর সেলস্ এন্ড মার্কেটিং মি. আহসেন রাজপুত সহ ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স এর কর্মকর্তাবৃন্দ।

 

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ১৭ই জুলাই ‘ফ্লাই ফাস্ট- ফ্লাই সেফ’ স্লোগান নিয়ে ২টি ড্যাশ-৮ কিউ ৪০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে অভ্যন্তরীন রুটে যাত্রা শুরু করেছিলো। বর্তমানে চারটি বোয়িং ও তিনটি ড্যাশ৮-কিউ৪০০ সহ মোট সাতটি এয়ারক্রাফট রয়েছে ইউএস-বাংলার বিমান বহরে। ইউএস-বাংলার সময়ানুবর্তিতা, নিরাপত্তা নির্দেশনা এবং কর্মীদের দক্ষতার কারণে গত সাড়ে চার বছরের অধিক সময়ে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটে ৫৭ হাজার ফ্লাইট পরিচালনা করতে সক্ষম হয়েছে। অভ্যন্তরীণ সকল রুট ছাড়াও বর্তমানে সিংগাপুর, কুয়ালালামপুর, ব্যাংকক, গুয়াংজু, দোহা, মাসকাট ও কলকাতা রুটে ইউএস-বাংলা ফ্লাইট পরিচালনা করছে। তথ্য:- ইত্তেফাক

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..