বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে রাতে শক্তিশালী ওমানের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৫ জুন, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক

২০২২ বিশ্বকাপ ও ২০২৩ এশিয়ান কাপের বাছাইপর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে আজ মঙ্গলবার শক্তিশালী ওমানের মুখোমুখি হবে লাল-সবুজের বাংলাদেশ ফুটবল দল। কাতারের দোহায় জসিম বিন হামাদ স্টেডিয়ামে খেলা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায়।

বাছাইপর্বে বাংলাদেশ দল  খেলছে ‘ই’ গ্রুপে। এই গ্রপের অন্যতম দল ওমান। বাছাইপর্বে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে দলটি। সেখানে বাংলাদেশের অবস্থান টেবিলের তলানিতে। সাত ম্যাচের একটিতেও জয় পায়নি বাংলাদেশ। মাত্র দুটিতে ড্র করেছে, বাকি পাঁচটিতেই হার দিয়ে লাল সবুজের দল। ওমানের সঙ্গে প্রথম দেখাতেও ৪-১ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ।

এ ছাড়া ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে দুই দলের মধ্যে বিস্তর ব্যবধান। ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে ৮০ নম্বরে আছে ওমান। বাংলাদেশ তাদের চেয়ে ১০৪ ধাপ পিছিয়ে রয়েছে। সব মিলিয়ে বাংলাদেশ থেকে শক্তির বিচারে অনেক এগিয়ে ওমান। তবুও দলটির বিপক্ষে পয়েন্ট পেতে মুখিয়ে আছে বাংলাদেশ। ম্যাচের আগের দিন যেমনটা জানিয়েছেন লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

এদিকে ওমানের বিপক্ষে ম্যাচের আগে একাদশ সাজানো নিয়েই বিপাকে আছেন বাংলাদেশ কোচ জেমি ডে। ম্যাচটিতে অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়া থাকছেনা এই ম্যাচে। হলুদ কার্ডজনিত কারণে ওমানের বিপক্ষে খেলতে পারবেন না তিনি।

একই কারণে খেলতে পারছেন না দলের গুরুত্বপূর্ণ আরও দুই খেলোয়াড় রহমত মিয়া ও বিপলু আহমেদ। আঘাত জনিত কারণে ছিটকে গেছেন মাশুক মিয়া জনিও। সবমিলে শেষ ম্যাচের একাদশ সাজাতেই হিমশিম খেতে হবে বাংলাদেশ কোচ জেমি ডেকে।

জামালের পরিবর্তে অধিনায়কের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তপু বর্মণকে। কঠিন ম্যাচকে সামনে রেখে তিনি বলেন, ‘ওমান সম্পর্কে ভালো ধারণা আমাদের আছে। কাতার ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওদের শেষ দুটি খেলা দেখেছি। সেখান থেকে তাদের শক্তি ও দুর্বলতার জায়গাগুলো দেখেছি। তা নিয়ে কোচ আমাদের সঙ্গে কাজ করেছেন। তাদেরকে কীভাবে আমরা আটকাব, তাদের বিপক্ষে কীভাবে আক্রমণ করব, এগুলো নিয়ে অনেক কাজ করেছি। আমার মনে হয়, দলীয়ভাবে যদি ভালো পারফর্ম করতে পারি, অবশ্যই তাদের থেকে এক পয়েন্ট নিতে পারব। যেহেতু আমাদের বাছাইয়ের শেষ ম্যাচ এটা, আমরা যেন ভালো একটা ফল পেতে পারি।’

মিডফিল্ডার বিপলু বলেন, ‘এর আগে আমরা যখন ওমানের বিপক্ষে তাদের মাঠে খেলেছি, তখন ৫০ মিনিট গোল খাইনি। কিন্তু পরে হয়তো আমাদের সামান্য ভুলে গোল খেয়েছি। ওই ম্যাচে একটা গোলও করেছিলাম। আমি মনে করি, আমার ওই গোলটি ওমানের বিপক্ষে আমাদের খেলোয়াড়দের জন্য অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে। আমাদের খেলোয়াড়দের গোল করার সামর্থ্য আছে। যদি আমরা সেরা পারফর্ম করতে পারি, কোচ যেভাবে বলে দিয়েছেন, সেটা মাঠে কাজে লাগাতে পারি, তাহলে ওমানের কাছ থেকে এক পয়েন্ট নিতে পারি।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..