মাধবদীতে সাবেক কাউন্সিলর জাকারিয়ার গুলিবিদ্ধের মামলার আসামী জুনিয়র মাসুদ গ্রেফতার

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই, ২০২১

মাধবদী প্রতিনিধি

মাধবদী পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর জাকারিয়াসহ দুইজন গুলিবিদ্ধের ঘটনায় তালিকাভুক্ত আসামী ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ রানা ওরফে জুনিয়র মাসুদ (২৬) কে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। বুধবার(৭জুলাই) রাতে ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। একই ঘটনায় গুলি পরীক্ষার জন্য মাধবদী পৌরসভার মেয়র মোশাররফ হোসেন মানিকের লাইসেন্সকৃত পিস্তল জব্দ করা হয়েছে বলে বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দুজ্জামান।

এতে প্রশাসনের প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করেছেন গুলিবিদ্ধ নরসিংদী সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর মোঃ জাকারিয়া। তিনি অনতিবিলম্বে উক্ত মামলার প্রধান আসামি মাধবদী পৌরসভার মেয়র মোশাররফ হোসেন মানিকসহ বাকি আসামীদেরকে গ্রেফতারের দাবি জানান। সেইসাথে তার পক্ষের মামলার বাদী নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আনোয়ার হোসেন এর নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন।

উল্লেখ্য, গত ১৬ জুন মাধবদীতে স্থানীয় আওয়ামী লীগের এক অনুষ্ঠানে মাধবদী পৌর মেয়র মোশাররফ হোসেন মানিককে দাওয়াত না দেয়ায় তার নেতৃত্বে প্রতিপক্ষ গ্রুপের নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আনোয়ার হোসেন ও তার অনুসারীদের উপর প্রকাশ্যে হামলা গুলিবর্ষণ করা হয়। এতে আনোয়ার হোসেনের ছোট ভাই জাকারিয়াসহ দুইজন গুলিবিদ্ধ হয়। এঘটনায় আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে মেয়র মোশাররফ হোসেন মানিককে প্রধান আসামি করে মোট ১১ জনের নাম উল্লেখ করে মাধবদী থানায় একটি মামলা দায়ের করে। ওই মামলার চতুর্থ আসামী মাসুদ রানা ওরফে জুনিয়র মাসুদ। সে মাধবদী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নেতা ও মাধবদীর টাটাপাড়া মহল্লার মোঃ রিপন মিয়ার ছেলে। একই ঘটনায় মেয়রের অনুসারী ও হামলায় অভিযুক্ত মোজাম্মেল বাদী হয়ে গুলিবিদ্ধ জাকারিয়াকে প্রধান আসামি করে ৭ জনের নামে একটি পাল্টা মামলা দায়ের করে। এই মামলায় গত ২৪জুন নরসিংদী জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও গুলিবিদ্ধ জাকারিয়ার বড় ভাই আনোয়ার হোসেন আদালতে হাজির হয়ে জামিন চাইতে গেলে জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেয় আদালত।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..