সংবাদ শিরোনাম :
নরসিংদীর সূর্যমুখী ফুলের বাগানে ভীড় করছে শত শত ফুলপ্রেমী দর্শনার্থী নরসিংদীতে ইটভাটায় মাটি সরবরাহে নদীপাড়ের ফসলি জমিগুলোতে চলছে মাটি কাটার মহোৎসব আত্রাইয়ের গ্রামগুলোতে কুমড়ো বড়ি তৈরির ধুম ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত ৭ লাখ ৪১ হাজার জনকে বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে; সংসদে প্রধানমন্ত্রী নরসিংদীতে ৯2–ব্যাচ বন্ধুদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত রায়পুরা উপজেলা প্রতিবন্ধী ফোরামের উদ্যোগে শীত বস্ত্র বিতরণ রায়পুরায় প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক অনুদানের চেক পেলেন দরিদ্র নেতা-কর্মীরা রায়পুরার পিরিজকান্দি শামসুল উলমু নূরানীর মাদ্রাসার ১ম ইসলামী সম্মেলন সাংবাদিক নজরুল ইসলামের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে নরসিংদী জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের দোয়া ও মিলাদ করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণে আবারও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান বন্ধের ঘোষণা

নরসিংদীতে খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠিয়ে চিকিৎসার দাবিতে স্মারক লিপি প্রদান

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং তাকে বিদেশে পাঠিয়ে চিকিৎসার দাবিতে নরসিংদীতে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারক লিপি দিয়েছেন জেলা বিএনপি। কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বুধবার বেলা ১১ টায় নরসিংদী জেলা জাতীয়তাবাদী  আইনজীবি সমিতির নেতৃবৃন্দ এই স্মারক লিপি  জমা দেন।

নরসিংদী জেলা বিএনপির সহ সভাপতি ও জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এড.আব্দুল বাসেত ভূইয়ার  নেতৃত্বে জাতীয়তাবাদী আইনজীবিদের একটি দল জেলা প্রশাসক পক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ মোস্তফা মনোয়ার’’র হাতে স্মারক লিপিটি হস্তান্তর করেন।

এসময়  অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত  ছিলেন জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সাধারণ  সম্পাদক আব্দুল কাদির টিটু, নরসিংদী সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা মহিলা  দলের সভাপতি এড. উম্মে সালমা মায়া ও এড. সিফাত হোসেন রাহাতসহ অন্যান্যরা।  তবে স্মারক লিপি হস্তান্তরকালে কাইকে কোন ছবি তুলতে দেওয়া হয়নি।

উল্লেখ্য সোমবার (২২ নভেম্বর) নরসিংদী জেলা বিএনপির কার্যালয়ে খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং তাকে বিদেশে পাঠিয়ে চিকিৎসার দাবিতে সমাবেশ চলাকালে পুলিশ কার্যালয়ের আশপাশে ঘেরাও করে রাখে। এসময় পুলিশ ৬ জনকে গ্রেফতার করে। এদিকে গ্রেফতারের ভয়ে এসময় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও জলা বিএনপর সভাপতি খায়রুল কবির খোকনসহ প্রায় দুই শতাধিক নেতাকর্মী কার্যালয়ের ভিতর অবস্থান নেয়। এর ফলে তারা অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে বলে দাবী করেন খায়রুল কবির খোকন। পরে রাত পৌনে ১০টার দিকে বিনা বাধায় খায়রুল কবির খোকন কার্যালয় থেকে বের হয়ে ঢাকায় ফিরে যায়।

তবে কার্যালয় ঘিরে রাখার বিষয়টি শুরু থেকেই করে অস্বীকার করে আসছিল পুলিশ।

এদিকে মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও জেলা বিএনপির সভাপতি খায়রুল কবির খোকন ও সোমবার গ্রেফতারকৃত ৬ জনসহ ৭২  নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা ১৫০ -২০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। পুলিশের দেওয়া মামলার পরিপ্রেক্ষিতে গ্রেফতার এডাতে খায়রুল কবির খোকনসহ জেলা বিএনপির অন্যকোন নেতাকর্মীদর   স্মারক লিপি হস্তান্তরকালে দেখা যায়নি।

Facebook Comments

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..